সোমবার, ১৪ মে, ২০১৮

প্রহসিত ~ অনামিকা মিত্র

ভাঙছে নদীর পাড় দ্রুত। সশব্দ ভাঙনের কালে
আমরা শুনিনি কানে কিছু। মন দিই টিভি সিরিয়ালে।
এখন নির্বিকার থেকে, কোনও মতে নিজে বেঁচে থাকা
রাজপথে হেঁটে গেলে যাক, যার হাতে জয়ের পতাকা।

উলুখাগড়ারা মরে যাক। রাজা রণদামামা বাজায়।
আওয়াজে 'কথা'রা ঢেকে গেলে, 'জয়'কে দখল করা যায়।
প্রজাদের একটাই কাজ, বেঁচে থেকে রাজার ভজনা।
শুধু কেন মরে যেতে চায়, অবাধ্য বেকুব ক'জনা?

যে'হেতু জীবন একটাই, বেঁচে থাকা দারুন জরুরী
হাসি মুখে থাকার হুকুম। বিদূষক দেয় সুড়সুড়ি। 
শ্মশানে শান্তি থাকে খুব। এইখানে গ্রামে ও শহরে
প্রশ্ন তুলবে পেয়াদারা, কবি কেন রাজনীতি করে?

গণতন্ত্রের মুখোমুখি, দেশ ভরা খুদে হিটলারে।
প্রতিদিন গুণে নেওয়া হয়, ক'টা মাথা আছে কার ঘাড়ে?
মেধাবী মিডিয়া এইখানে সেজেগুজে কচলাবে লেবু
মাঝরাতে বাড়িতে আগুন। মরে যাবে ঊষা আর দেবু।

যে সময়ে মন ভালো থাকে, যে সময়ে সুখ থাকে মনে
মানুষেরা হাসে গান গায়, ভেসে যেতে পারে প্রহসনে।
রাজাদেশ ছড়ায় গুজব। আমরা গুজব খেয়ে বাঁচি।
এখন কি সুখের সময়? আমি কেন প্রহসনে আছি?