শুক্রবার, ২৬ জানুয়ারী, ২০১৮

সৌন্দর্য? ~ অনির্বাণ মাইতি

আজ রাজারহাট ধরে ফিরছিলাম বাড়ির দিকে। রাস্তা জুড়ে আলো ঝলমল করছে দেখতে কি ভালো যে লাগে। জানালার কাঁচে মাথা ঠেকিয়ে দেখছিলাম আলোর ঝর্ণা। রাস্তায় একটা জায়গায় গাড়ি একটু জ্যামে ফাঁসল। চোখ গেল একটা গাছের দিকে গাছটা ন্যুব্জ  হয়ে নীচের ছোট চারা গাছ গুলোকে যেন ঢেকে দিতে চাইছে। তাকিয়ে থাকতে থাকতে হঠাৎ কানে এলো চারা গাছের কথা 
"আলো নিভবে না মা? ঘুম আসছে না যে"
মা গাছ ও উত্তর খুঁজতে রাস্তার দিতে তাকালো, পাতার মর্মর শব্দও কানে এলো। গাছটা যেন সোজা চোখে আমার দিকেই তাকিয়ে আছে। উপলব্ধি করছে আলোর রোশনাই দেখে আমার মুগ্ধতা। তারপর আরো আরো ন্যুব্জ হয়ে চারাগুলিকে ছায়া দিতে দিতে যেন বলল "ঘুমাও আমি ছায়া দিচ্ছি, কিন্তু বাছা আমার, এই শহরে আলোয় ঘুমানো অভ্যেস করতে হবে তো" 

খারাপ লাগল গাছ আর তার ছানাদের কথা ভেবে। অনুভব করলাম আলোর মুগ্ধতাও যেন নিমেষে উধাও। কোনটা জরুরী বেশি, আলোয় ঝলমল শহর নাকি গাছের বিশ্রাম? সারাদিন আমাদের দূষণের ভার বইতে বইতে ক্লান্ত গাছগুলো কি এক ফোঁটা ঘুমাবে না? গাছ না বাঁচলে এই আলোগুলো আর জ্বালাবার দরকার হবে কি? জ্বালাবেই বা কে?