রবিবার, ১৮ জুন, ২০১৭

পাহাড় হাসছে ~ অবীন দত্তগুপ্ত

মনে করুন ,সেই সেদিনের কথা । আপনি দার্জিলিং গেছেন । গুরুং আপনাকে "মা" বলে ডেকে আহ্লাদে গলে পড়ছেন । আপনি সব কথা মেনে নিচ্ছেন গুরুং-এর । একটা গুন্ডাকে রাজনৈতিক বৈধতা দিচ্ছেন । জি টি এ- চুক্তিতে মেনে নিচ্ছেন গোর্খাল্যান্ডের দাবী । আপনার স্বার্থ কি ? কেন, তরাই আর ডুয়ারস-এ গোর্খা ভোট । এর আগে আদিবাসীদের ভাগ করে ফেলেছেন ,আদিবাসী বিকাশ পরিষদকে ধুয়ো দিয়েছেন ডুয়ারসে । তারও আগে কুচবিহারে কামতাপুরিদের সাথে জোট করেছেন । কামতাপুরিদের বাংলা ভাগের দাবিকে হাওয়া দিয়েছেন , গুরুঙ্গের বাংলা ভাগের দাবিকে হাওয়া দিয়েছেন । আপনি এই সমস্ত করেছেন স্রেফ অঙ্কের খাতিরে । যে কোন উপায় সিংহাসন চড়ার লোভে । যে আগুন উস্কে দিয়ে , সম্পূর্ণ পুড়ে যাওয়া এক দেহের উপর তান্ত্রিকের আসন পেতে বসেছিলেন - সেই আগুনেই দেখুন আপনার নিজের আসনটাও পুড়তে বসেছে । আপনার চেয়েও ঘৃণ্য বেনিয়ার দল বি জে পি ,বাংলা ভাগের আপনার পুরানো খেলাটাই আরও নোংরা ভাবে খেলতে চাইছে । দেখুন , সেদিনের আপনার সাথে একমাত্র তফাৎ যাদের করতে পারছেন , তারা আপনার চিরশত্রু , কমিউনিস্ট পার্টি । রাজ্যের এই ভয়ঙ্কর পরিণতির সামনে দাঁড়িয়ে , ওরা দেখুন আপনার মতো শবসাধনা করছেন না । মনে রাখবেন ,দুশো জন কমিউনিস্টের রক্ত লেগে আপনার আলগা হাসির পাহাড়ে । মনে রাখবেন ,স্রেফ ক্ষমতার জন্য বিচ্ছিন্নতাবাদকে প্রশ্রয় দেয় না বামপন্থা । একটু বামপন্থীদের থেকে শিখুন - অদূর ভবিষ্যতে ক্ষমতা হারাবেন যখন ,কাজে দেবে ।