শুক্রবার, ৩০ অক্টোবর, ২০১৫

হাসির সপ্তক ~ অরুনাচল দত্তচৌধুরী

হাসির সপ্তক
--------------------

১)
ট্যাব-এ ছবি তোলা হবে, হয়েছে হুকুম
হাসিমুখে পোজ দাও
চা বাগান, ভুলে যাও খিদে মরসুম

মরে গেছো? মরে যেতে পারো।
উড়োকথা শোননি কি?
শোননি কি হাসছে পাহাড়ও…

২)
জাতপাতই সত্য শুধু,
বাকি সবই ভান
ভাগ্যিস ছিল পাকিস্তান
উবে গেছে ডিজিটাল ইন্ডিয়া অছিলা

পতনের যাত্রাপথে
হেসে ওঠে উন্নয়নশিলা

৩)
লুকোই না, লুকিয়ে কী লাভ
হাসি দিয়ে মুছেছি বিলাপ

আমনধানের মাঠে  জড়ো হয় তুষ
জল নেই অজুহাতে
বিষ খায় অভাবী মানুষ

৪)
বলব না, শুনব না, ওই দৃশ্য দেখব না চোখে
এমনকি ভাবব না, কারা খুবলে খেয়ে নিল তোকে।

মেয়ে,
তোর মৃতদেহ চিবোতে চিবোতে
মুচকি ঠোঁটে তর্ক করব সান্ধ্য টক শোতে।

৫)
অনাহার মেঘ নেই,
হেথা শুধু মিঠে কড়া রোদ।
একপ্লেটে বিফ খায় বিকাশ-সুবোধ।

কেন, শুধু গরু কেন?

অকারণ এই সব জেরা।
আপাতত বেঁচে গেছে
ভীতু আর বোকা শুওরেরা।

৬)
দানাপানি খুদকুঁড়ো নিশ্চয়তা পেলে
পায়রারা রোজ হাসে সকালে বিকেলে
কবুতরশাস্ত্র আজও পুরনো রকম
ক্ষমতার খোপে বসে অবিরত বকম বকম

৭)
হাসিমুখে বাধ্য বাঁচো,
না বাঁচলে সব কিছু মাটি
আহারে বাহারে নাও সমস্ত মজাটি

খাদ্য উৎসব হোক
জল-উৎসব বোতলে বোতলে
সব পাবে,
ভাগ্যবলে বেঁচে আছো বলে।