শুক্রবার, ৪ সেপ্টেম্বর, ২০১৫

বিষয় - আয়ালান কুর্দি ~ জাগরী ব্যানার্জী

" সমুদ্রে ফিরিয়ে দিলে !!!! ওহে আফলাতুন !"
কহিলেন ইমাম গাজ্জালী ।
"পাঠালাম মাতৃ হস্তে নিরাপদ তোমাদের দেশে !
দর্শনে , পঠনপাঠনে , গুরুকুলে ক্যাফেটেরিয়ায় ,
মহা তর্কে বহুদিন যাপন করিবে এই আশে ! বড়ো হয়ে উঠতে সেখানে ।
পাঠালাম তিন বর্ষীয় যে বালক !
ওহে আফলাতুন! সমুদ্রে ফিরিয়ে দিলে !!
দেখ দিকি কত যত্ন করে , কিনে দিনু লাল রঙা জামা
দেখ দিকি অভিমান ভরা পিঠ , ফিরে শুয়ে আছে আনমনা ।


স্যাঁতস্যাঁতে বালির ওপরে ।
ওহে আফলাতুন ! হায় ! "
কহিলেন ইমাম গাজ্জালী ।

"তোমার ভূখণ্ডে বন্ধু প্রতিদিন ভাঙ্গছে তোমাকে ।
ভেবেছো কি আমাকেও এরা, ভাঙ্গতে রেখেছে কিছু বাকি ?"
নতমুখে প্লেটো কইলেন ।

"আরিস্তুও বিফল হলেন ? কি বলেন চক্রায়ুধ ? নাগারজুন ? কি কহে চার্বাক ?
কি বলেন এ বিষয়ে আল-কিন্দি ? ইবন-আল-নাদিম ? কি বলেন সন্ত তেরেসা ?"

"তাহাদের মতে , জৈবিক নিয়মানুক্রমে ও শিশু বেশীক্ষণ করেনিকো ভোগ , কোন ভবযন্ত্রণা । শেষ হয়ে গেছে চটপট । তুর্কীর অই বালু-তট । বোদরুম নগরী । সামলে নিয়েছে তাড়াতাড়ি "
..."তাছাড়াও তুমি মহাজ্ঞানী ! মহাজন কি বলে গেছেন সেটি আনো স্মৃতি - পটে । ওহে ভ্রাতা ইমাম গাজ্জালী! " আরিস্তু বলে চল্লেন
..." জন্মাবধি কেউ কেউ দাস , অতএব জন্মাবধি কেউ মৌল বাদ , কেউ কেউ জন্মালে , প্রাসাদ । জন্মাবধি কিছু লোক ত্যাজিবে আবাদ । জন্মাবধি কেউ ,খুঁজবে নতুন জমি । কেউ হৃত - জন্মভূমি , জন্মাবধি কেউ হত-প্রিয় ।"

ডুকরে ওঠে ইমাম গাজ্জালি , " সে যে শিশু তিন-বর্ষীয় !
সমুদ্দুরে ফেলে দিলে !
ওহে আফলাতুন !
আমাদের সব যুক্তি , ধনুর্বিদ্যা , সব জ্ঞান-গুন
এই ভাবে ছুঁড়ে দিলে ? "
সক্কলে চুপ ।
প্রতিদিন এই গ্রহে , সমস্ত সাগরে ,আশ্রয়প্রার্থী ডিঙা , উলটে-লাট খাচ্ছে কেবলই ।
মনীষা র শীর্ষ -সম্মেলনে , আছাড়ি-পিছাড়ি খান , প্রতিদিন বাক্যহারা , ইমাম গাজ্জালী ।


#AylanKurdi