শুক্রবার, ২৪ অক্টোবর, ২০১৪

la guerre n'est pas finie ~ অবিন দত্তগুপ্ত

কামদুনির মেয়েটার পরিবারকে টাকায় কিনেছিলেন উনি । যাদবপুরের মেয়েটির বাবাকেও হাটতে বাধ্য করা হয়েছিল নোংরা মিছিলে । আমার রাজ্যের ফ্যাসিস্টের এমন অনেক , কুৎসিত গল্প আমার জানা । 

সেই পুতিগন্ধময় পরিবেশ থেকে উদ্ধার করবেন এক ৫৬ ইঞ্চি বুকের মালিক লৌহ পুরুষ ,যিনি ভালো দিন আনবেন ... বাজারি বাতাসে, বোকা বাক্সে আর সাইনিং হৃদয়-এ এমনি স্বপ্নের আনাগোনা । তা, কৃষক মৃত্যু কমলো না , ডিজেলের দাম কমলো না ... কিন্তু উনি আমেরিকায় দুর্দান্ত বক্তিমে দিলেন । সাইনিং মধ্যবিত্ত অমনি আহা বাহা রবে এফ বিতে এবং অন্যত্র লাফ মারল । উনি ঝাঁটা হাতে ক্যামেরার সামনে দাড়িয়ে, ' দাঁড়িয়ে ঝাঁটাও ' প্রতিযোগিতার উদ্বোধন করলে্ন ... পোশাকি নাম, স্বচ্ছ ভারত । অমনি ( বস্তি ফেসিং ফ্ল্যাটে অনিহা )সাইনিং তুমি , ভ্যাকুয়াম ক্লিনার হাতে , খাট ছেড়ে মেঝেতে নামলে( মিনতির মা, একদিন ছুটি পেল ) । 

অথচ , রামের নব অবতারের আসল ইচ্ছা অনুধাবন করতে পেরেছিল ,একমাত্র তার বিশ্বস্ত বানর সেনা । স্বচ্ছ ভারত, অর্থাৎ হিন্দু ভারত , নোংরা বিধর্মী মুক্ত ভারত । এই স্বচ্ছতার অভিযানে ,সামনে থেকে নেতৃত্ব দিলেন এবং দিচ্ছেন হনুমানস্বামী । তো প্রথমত ওনারা বললেন , " এই যে এতো সংখ্যক বিধর্মী , তার মূল কারণ ভালবাসা । এরা বেছে বেছে হিন্দু মেয়েদের সাথে ,প্রেম করে ,শুয়ে পড়ে এবং যে বাচ্চা জন্মায় সে বাপের ধর্ম নেয় ।" ... অতএব, এ একপ্রকারের জিহাদ্‌ , হনুমানস্বামী নাম দিলেন লাভ্‌ জিহাদ । নাম তো দিলেন, এবার প্রমাণ করতে হয় । রামকেও প্রমাণ করতে হয়েছিল রাবণ শয়তান ,তার জন্য শূর্পণখার নাক কাটতেও ( ইজ্জত কাড়তেও ) ,উনি পিছপা হন নি । রাক্ষস খারাপ প্রমাণ করতে পারলে ,রাক্ষস মারতে সুবিধা ,হিউম্যান রাইটস্‌ প্রবলেম করবে না । অতএব লাভ জিহাদের একটা ঘটনা , মার্কেটে উপস্থিত করা চাই ।

মিরাট সম্পর্কে আমার ধারণা , কন্সপিরেসি কেস অব্দি সীমাবদ্ধ । তবে সেই কন্সপিরেসি , যা কিনা আদতে , মুক্তিকামী মানুষকে কাছাকাছি এনেছিল ,এবং সাম্প্রতিক কন্সপিরেসিতে আসমান-জমিন ফারাক্‌ । একটি হিন্দু মেয়ে , একটি বিধর্মী ছেলেকে ভালবেসে পালিয়ে যায় । এরম আমরা আগেও দেখেছি , বিভিন্ন হিন্দি সিনেমায় । গানও আছে " হামনে ঘর ছোড়া হে , রাস্‌মো ক তোরা হে " ...সে যাই হোক । তা বানরসেনা জানান দিল ,মেয়েটিকে জোর করে একটি বিধর্মী অস্বচ্ছ পুরুষ ধর্ষণ করেছে । মেয়েটির বাবা-মা ও একি কথা বলল । হঠাতি, প্রেমে সাহসী মেয়েটি , বাঘিনীর মত উঠে দাড়িয়ে জানালো ,সে স্বেচ্ছায় ছেলেটির হাত ধরেছে ,এবং তার বাপ-মাকে ২৫,০০০ টাকায় কিনেছে , বানর সর্দার । 

এরপর-ও আপনি , সুদিনের স্বপ্নে বিভোর থাকবেন । ধর্মের নামে মানুষ কাটা হলেও , আপনার 'মা' সিরিয়াল বিঘ্নিত হবে না । এসব জানা কথা । কিন্তু লিখি , যদি কারো চোখে পড়ে যায় । ভালোবাসাকে বুঝলেন , সমস্ত ফ্যাসিস্ট ভয় পায় । কারণ ভালোবাসা , যে কোন ক্ষমতার মূল ভিত্তিকে চ্যালেঞ্জ করে । আমরা বাম্পন্থিরা , তাই মানুষে মানুষে ভালবাসার কথা বলি । হিন্দু-মুসলমানে , দলিতে-উচুজাতে , নারীতে-পুরুষে , পুরুষে-পুরুষে, নারীতে-নারীতে । ইচ্ছের কথা বলি ।বলি এই দক্ষিনপন্থার বন্ধ ভেঙ্গে , নতুন সূর্যের ভোরের কথা ...

la guerre n'est pas finie 
( The War is not over )