রবিবার, ৩০ মার্চ, ২০১৪

আমার বাপের শখ..... ~ তমাল রাহা

ক্ষেত খামারে বাপ খেটে যায়

দুইটা টাকার লাগি,
পড়াশুনায় খবরদার 
দিস নি রে ভাই ফাঁকি..

বইটা মুখে লেগেই ছিল 
বাইরে খেলার মাঠ,
এভাবেই করলাম শেষ
স্কুল-কলেজ এর পাঠ।

টেট পরীক্ষায় বসি যখন,
ভাসে বাপের মুখ
চাষার ব্যাটা মাস্টার মশাই
শুনতে ভারী সুখ, 
বাপটো লাঙ্গল চালায়েছে
সুখ ভরা ওর বুক।

পাতার পরে পাতা লিখি 
কলম নিয়ে হাতে,
বাপের লাঙ্গল বুক চিরে যায়
ধনেখালির মাঠে।

টেট এর লিস্টি দেখতে গেলুম, 
আমার বাপ এর ত'রে
ঘরে ফিরা বাপটো আমার
শুধায় বারে বারে,
মাস্টারির কিছু হইলো কি ঠিক?
কইলি না তো মোরে!

বৈলবো কি আর বাপটু আমার 
বাক্যি না আর সরে...
ক্যামনে বলি বাপটারে আর 
নেয় নি ওরা মোরে।

সুখের কথা বুকেই থাকে
বাপ এর মনে ব্যথা,
বৈলব কাকে? নই যে আমি
নেতা বাপের ব্যাটা !

চাষার ব্যাটার মাস্টারির 
শখটা ছিল ভারী...
জীবন টা তাই হঠাত থামে 
দিলাম এবার দাঁড়ি।

পড়বে যখন আমার চিঠি
আমি-ই অনেক দূরে 
গলায় দড়ির দাগটা দেখে 
কাঁদছে বাপটু জোরে....

এই জনমে আমার বাপের 
মিললো নাক সুখ, 
শখ মিটলো যাদের বাপের...
তাদের ভালো হোক ।