মঙ্গলবার, ১৯ নভেম্বর, ২০১৩

কুমিরডাঙা ~ অনামিকা মিত্র

খাল কেটেছি, কুমির এল তার কিছুটা পরে
আসুন হুজুর বসুন হুজুর চেঁচাই সমস্বরে
কুমির হাসেন বসব কি রে, সামনে অনেক কাজ যে!
সবকিছুতেই গিঁট বেধেছে তোদের পোড়া রাজ্যে।
আমার আবার কাজ ছাড়া আর ভাল্লাগে না কিচ্ছু।
অ্যাদ্দিন সব চলছে যা তা। আমলারা সব বিচ্ছু।
সবটা আমিই সামলে দেব। আমরা শুধোই, কবে? 
সয় না সবুর, দেশ ভরে যায় উৎসবে উৎসবে।
উৎসব কি একরকমের? হাজার রকম বায়না।
স্বদেশ থেকে ব্যাঘ্রকে চাই, বিদেশ থেকে হায়না।
বাঘ হায়নার পরেও আছেন নানান রকম জন্তু
সবার জন্য উত্তরীয়, রত্ন অধিকন্তু। 
দানছত্রেই ফুরোয় যদি কষ্টে জোগাড় অর্থ,
হতাশ বলি, উৎসবই কি এই যজ্ঞের শর্ত?
উৎসবে আর নিভছে না যে দগ্ধ পেটের অগ্নি
কুমির বলেন ঠিক বুঝেছিস প্রাজ্ঞ ভ্রাতা ভগ্নী
এই কথাটাই আজ না বুঝে বুঝতি যদি কালকে
আমার আসার আশায় থেকে কাটতি না এই খালকে।
কান্নাকাটি ঢাকতে এ'বার বাজুক কাঁসর বাদ্য।
আমারও খুব পাচ্ছে খিদে, তোরাই তো সেই খাদ্য।