মঙ্গলবার, ১৬ এপ্রিল, ২০১৩

আবাহনী ~ অ মি তা ভ প্রা মা ণি ক

~ আবাহনী ~

বলেছিলাম পয়লা বৈশাখ পড়ছে মধ্যে, সেদিন অফিস ছুটি থাকবে, শুনলো না, কলকাতা আপিসে এসে হাজির বিদেশী সাদা চামড়ার বড়বাবু। কী আর করা, গেস্ট হাউসের কেয়ারটেকারটাকে বললাম, বাবু যা খেতে চায়, ভালোমন্দ খাওয়াস। যদি বেরোতে চায়, আমাকে একটা ফোন করিস।

সেই পয়লা বৈশাখে সন্ধ্যে অবধি ফোন আসেনি। আমিই সন্ধ্যেবেলা হাজির হলাম গেস্ট হাউসে।

গিয়ে দেখি, দিব্যি আছে, টিভিতে বাংলা চ্যানেলের প্রোগ্রাম দেখছে। হঠাৎ উঠে গিয়ে একটা চিরকুট বের করে আমাকে দেখিয়ে জিজ্ঞেস করল, আর ইউ শ্যিওর দিস ওয়াজ পেন্‌ড্‌ বাই টেগোর?

দেখি, লেখা আছে, Yes, oh. Hey boy, suck. Yes, o yes, show.

আমি বললাম, হোয়্যার ডিড ইউ গেট ইট ফ্রম?
বললেন, টিভিতে এই চ্যানেলেই প্রোগ্রাম দেখছিলেন। একটা গানের সঙ্গে দুলে দুলে কতগুলো নাইসলি ড্রেস্‌ড্‌ ইয়াং গার্ল্‌স্‌ বডি মুভমেন্ট করছিল। কেয়ারটেকারকে জিজ্ঞেস করলে, সে বলেছে টেগোর সং।

আমার দিকে তাকিয়ে বললেন, আই থট টেগোর ওয়াজ অ্যা ফিলোজফার।

আমি আর কী বলি! বৈশাখের আহ্বান-সঙ্গীতের কী দশা করেছে এই ম্লেচ্ছ!

১৬ এপ্রিল, ২০১৩ // ২রা বৈশাখ, ১৪২০