সোমবার, ৭ জানুয়ারী, ২০১৩

বাংলার ভাগ্যাকাশে দুর্যোগের ঘনঘটা ~ অনামিকা মিত্র

বাংলার ভাগ্যাকাশে দুর্যোগের ঘনঘটা
পাঁড় সিপিএম তোরা এই সব রটাচ্ছিস? রটা ...
কি বা যায় আসে?

ইস্ট জর্জিয়ার সেই সুবিখ্যাত পিএইচডি সকাশে
পণতন্ত্র ঝাপসা হয়ে ঠিক মিশে যাবে,
যে রকম ভাবে
মরীচিকা মিশে যায় দিগন্ত মরুতে
জল খাবে একই সাথে বাঘে ও গরুতে
আমাদের ঘাটে

মাধ্যমিক পাশ নয়, প্রবল বখাটে
এমন কাউকে পেলে কলেজের পরিচালনার
ভার দেব। 
সুনন্দ কৌশিকের চেঁচানোই সার 
এই কথা জেনে তবু ওরা 
টিভিতে চেঁচায় খুব... ভুল হয়ে গেছে ... বড় ভুল ...
বাংলার ভাগ্যাকাশে আরাবুল ... শুধু আরাবুল ...

এ আমার গেমপ্ল্যান 
এলোমেলো করে দাও সব
মিথ্যাচারে ভরা উৎসব
টাটা গেছে, আহা যদি অন্তত ইনফোসিসও হত
ঢেকে দিতে সেই সব ক্ষত 
অশোকেরও চেয়ে বেশি শিলালিপি পোঁতো

একশ' দিনের টাকা ঝেড়ে দাও যতখানি পারো
বলাতো যায় না কবে ব্যাকফুটে যাব যে আবারও
অতএব মাঠে থাকো বাংলার দামাল ছেলেরা
আমার মিটিং শেষ। 
ভেবো না এখনই বাড়ি ফেরা

জমানা পালটে গেছে। প্রতিদিন তাই
চায়ের দোকান করো সিডি বেচো 
না পারলে করো ছিনতাই
চাকরির গল্পগাছা ভুলে যাও। এটা রিয়্যালিটি!
আমার এক্সচেঞ্জ আর পাঠাবে না চাকরির চিঠি

আসল অ্যাজেন্ডা হল বন্ধুগণ আখের গোছাও
সময় বড়ই কম... সবই ভান ... যেদিকেই চাও
মনোমোহনকে আর কত ভাবে করি ব্ল্যাকমেল
দামাল ছেলেরা হও বেপরোয়া ... 
হোক ফাঁসি ... জেল ...

অভিনয়ে বিমোহিত... একদিন ফিরবেই হুঁশ ...
পশ্চাতে কষাবে লাথি বাংলার মা মাটি মানুষ
সকাল সন্ধ্যা আমি চিন্তায় আকুল
কী ভাবে মুনাফা দেবে আমাদের প্রিয় তৃণমূল 
বাংলার ভাগ্যাকাশে আরও আরাবুল চাই ... 
আয় আরাবুল!