বুধবার, ২৪ অক্টোবর, ২০১২

ভ্যালেন্তিনা সেরোভা কে (বাংলায় অনুবাদ – সোমনাথ চট্টোপাধ্যায়)


ভ্যালেন্তিনা সেরোভা কে
কন্সতান্তিন সিমোনোভ
(বাংলায় অনুবাদ সোমনাথ চট্টোপাধ্যায়)

প্রতিক্ষায় থেকো, আমি আসবই ফিরে
প্রতিক্ষায় থেকো, হৃদয়ের গভীরে
প্রতিক্ষায় থেকো, যখন বৃষ্টির ফোঁটা
বলে "প্রতিক্ষার কুয়াশা শেষ ভোরের শিশিরে"
প্রতিক্ষায় থেকো, প্রখর দাবদাহে, যখন গ্রীষ্মকাল
প্রতিক্ষায় থেকো,যখন তুষারে ঢাকা দিকচক্রবাল
প্রতিক্ষায় থেকো, যখন গতকাল হবে, আগামীরা অন্তে
প্রতিক্ষায় থেকো, যখন আমার খোঁজ নিয়ে দিগন্তে
কোন ডাকহরকরা দেখা দেবে না
প্রতিক্ষায় থেকো, যখন বাকিরা বলবে
"ও মানুষ টা আর বেঁচে ফিরবে না"

প্রতিক্ষায় থেকো, আমি আসবই ফিরে
প্রতিক্ষায় থেকো, প্রত্যাশী শরীরে,
যখন সবাই বলবে তোমাকে
"মন থেকে ওকে মুছে ফেলো"
আমারই কাছের মানুষজন বলবে-
"আর আশা নেই, এবার মানুষটাকে ভোলো"
বন্ধুরা হাল ছাড়বে একে একে,
লাভ ক্ষতি দেনা পাওনার হিসেব কষা হবে
তিক্ত সুরার স্বাদের সঙ্গে
স্মৃতিটুকু শুধু ধুলোমাখা ছবি হয়ে যাবে
প্রতিক্ষায় থেকো, সুরার পাত্র দিও ফিরিয়ে
প্রতিক্ষায় থেকো, আমি ফিরবই স্বশরীরে

প্রতিক্ষায় থেকো, আমি আসবই ফিরে
ধ্বংসের গদ্যকে জীবনি-ছন্দে ভরে।
ওরা বলবে "ভাগ্যি আপনার মশায়"
যারা ফিরলনা, তাদের সঙ্গে তুলনায়।
কেউ বুঝবেনা তারা সূচরিতাষু
আমাকে ফিরিয়ে আনবে তোমার প্রতিক্ষা -
প্রতিটি মুহুর্ত বলছে আমাকে কানে কানে
"প্রতিক্ষায়" আছো তুমি,
শুধু আমিই জানি এই অপেক্ষার মানে।

Wait for me (Жди меня), written by the Soviet poet and playwright turned war correspondent, Konstantin Simonov, is one of the best known World War II poems.

It was written by Simonov in 1941 after he left his love Valentina Serova behind to take on his new duties of war correspondent on the battlefront.