শনিবার, ১৪ এপ্রিল, ২০১২

এ কোন সকাল ~ সৌমেন কুমার

বড্ড ভয় করছে;
বড়ো ভয় করছে
মধ্যরাতে অমাবস্যার নিস্তব্ধতা ভেঙে,
কড়া নড়ে উঠবে না তো ?
শান্তির ওম, গরাদ ঘরের শীতলতায় বদলে যাবে না তো?

......না লিখে কলমের কালি শুকিয়ে গেছে
বাকরুদ্ধতায় অসারতা গ্রাস করেছে জিহবা,
ছবি আঁকিনা বহু দিন - হয়ত বা বর্নান্ধতা সমাগত
রঙ খুঁজে পায় না তুলি, তুলি খুঁজে ফেরে ক্যানভাস !
দিগন্ত বিস্তৃত মানবতার হাহাকার - মানবেরই খোঁজে
খোয়াইয়ের স্নিগ্ধতায় প্রেম খুঁজে ফেরে আশ্রয়,
মধ্যরাতের স্বপ্নে ভারী বুটের শব্দ ফিরে ফিরে আসে
হাজার বছরের অভ্যাস, পূর্ব দিগন্তে ফিরে আসে সূর্য।

তবু এ কোন সকাল?
মায়াবী আলো নেই, শিশিরের স্নিগ্ধতা নেই,
ময়দানে কুয়াশা নেই, কুয়াশা ঢাকা ভিক্টোরিয়া নেই।
এক্কাগাড়ি ছুটে চলেছে, ঠুং ঠুং শব্দ নেই;
মিছিল নেই, প্রতিবাদ নেই, মোহরকুঞ্জে বিতর্ক নেই;
নন্দিনীর আর্তি চাপা পড়েছে রাজার দামামায়।

এ কোন সকাল - নিস্তব্ধ শীতলতা
বড়ো ভয়াল নিস্তব্ধতা ,
বড় আতঙ্কে রয়েছি রঞ্জন - বড় আতঙ্কে...
এসো রঞ্জন, বসন্তের আগমন বার্তা নিয়ে এসো
বিশুর দল জাগিয়ে রাখো নন্দিনীকে;
রঞ্জন যে আসবে - শুরু হবে এক নতুন জয়যাত্রা।