শুক্রবার, ১৫ এপ্রিল, ২০১১

প্রতিভা ~ অনামিকা মিত্র

অঙ্কন শেখা শুভাদার কাছ থেকে
আমার বেলায় বাঁকা হাসি? অবহেলা?
রবিঠাকুরওতো এঁকেছে প্রচুর ছবি
কোনও আপত্তি করিসনি তার বেলা।

রবিঠাকুরেরই মতন লিখেছি বই।
বেশি নয় ঠিকই, দুইচার খানা কম
নোবেল পাইনি। পাব না বলেছে কেউ?
পোড়ালেও হয় দিব্যি দুধ গরম।

গান জানি, জানি বাজাতে সরগরম।
সুর ভুল? সে'তো লতা মঙ্গেশকরও
প্রথম প্রথম নার্ভাস হয়ে গিয়ে...
শুধু শুধু একা আমাকেই কেন ধরো?

আরও নানাবিধ প্রতিভা রয়েছে হাতে।
জলের মতন মিথ্যে বলতে পারি,
লোকসভাতেও মিথ্যে পিএইচডিটা 
দাখিল করেছি। ছিঁড়ে পড়ি নয়া শাড়ি।

আর কী কী পারি চ্যালারা বুঝিয়ে দেবে
নিজেও হয়তো বুঝে যাবি হাড়ে হাড়ে!
যদি না বুঝিস? তারও ব্যবস্থা আছে।
মিডিয়ারা পারে। সবটা বোঝাতে পারে।

যে করেই হোক ছলে বলে কৌশলে
গদী দখলের হুকুম পেয়েছি আমি।
আপাতত তাই তোদের সইতে হবে
প্রতিভা এবং মাপাজোকা পাগলামী।

চ্যানেল কিনেছি ছবি আঁকা টাকা দিয়ে
ছবি কিনে নিল মেহতা ও নেওটিয়া।
এ'বার চ্যানেলে ভাগ্য গণনা শুরু। 
ঠোঁট দিয়ে ঠিক তাস টেনে নেও টিয়া!