বৃহস্পতিবার, ১৬ ডিসেম্বর, ২০১০

নেপথ্য ডায়ালগ ~ অনামিকা

ইনি---

লালুদা'র রেখে যাওয়া প্রকল্পগুচ্ছ
পাথরে পুঁতছি আর নাচাচ্ছি পুচ্ছ।
পেট্রোলে ফের দাম বাড়ালে যে টাকা তিন,
সেটা যে খারাপ খুব, বলেছি কি কোনও দিন?
লিটার কিনতে টাকা লেগে যাবে ষাটটা।
জনগণ মানছে না এইসব ঠাট্টা!
এলে না প্রণবদাদা, ছিল কথা দেয়া না!
"বি টিম"রা কবে থেকে এত হল সেয়ানা?

তিনি---
আদরের বোকা খুকি শুধু শুধু রাগলি!
অধীর না হলে পরে কে জেতাতো, পাগলি?
এই যে বলছি এত,পৌঁছেছি এ্যাদ্দুর,
পারতাম এত কিছু, না হলে জঙ্গীপুর?

ইনি ---
ন্যাকা ন্যাকা কথাগুলি অন্যকে বুঝিয়ো।
সব বুঝি তহলকা ... টেলিকম ... টু জি ও।
নাশকতা! ফুটো করে দিল হেলিকাপটার,
মুন্ডু চিবোবো ওই অধীরের বাপটার!
সব খেলা জানি আমি। ধর্মের জিগিরে,
দখল করব আমি ও সাগরদীঘিরে!

এনডিএ জানে আমি কোনও কিছু মানিনি।
এই আছি এই নেই ... বড় অভিমানিনী!
সেই আমি টুঁ অবধি করছিনা শব্দ।
কেননা অনেক বড় আমার আরব্ধ।
দুর্নীতি হলে হোক। প্রতিবাদ চাইনি।
বাংলাকে একা খাব, আমি একা ডাইনি!

তিনি---
মনোমোহনের গেছে ছিরকুটে দন্ত।
সুপ্রিম কোর্ট না কি করাবে তদন্ত!
এনডিএ ইউপিএ উঠেছিস দু'টোতে।
সব নৌকোই ফেঁসে বড় বড় ফুটোতে।
দু'হাজার এক থেকে দু'হাজার দশ তক
কী বেরোবে ভেবে ভেবে ফেটে যায় মস্তক!

ইনি---
কী ভাবে সিএম হব, আমি নিজে? তা ছাড়া,
উপোসী রয়েছে সব ছারপোকা বাছারা!
মিডিয়াতে তড়পাই। বাস্তবে পারি না।
নেই গতি, তাই সতী! ইউপিএ ছাড়ি না।

তিনি---
ছোটো হলে ছোটোখাটো লাথিটাথি প্রাপ্য।
ভাবিস না এ'কাহিনি এখনই সমাপ্য!

ইনি---
ভান করি চটবার। তুমি কেন চটে যাও?
যাই হোক ... জোট চাই। ভোট এলে জোটে নাও!

তিনি---
তাই বল! পথে আয় ... করিস না ফোঁসফোঁস।
চোখ মোছ। আয় তু ... তু... এসে পদতলে বোস!