বৃহস্পতিবার, ১৫ অক্টোবর, ২০০৯

কলকাতা জ্বালিয়ে দিতাম ….........এক তৃণমূলী ভাইয়ের জবানবন্দী ~ জ্যোতির্ময়

কাল রাতে সল্টলেকে দিদির উপর হামলার পর এক উঠতি তৃণমূল কর্মীর কথা শুনেছি আমি ঝড়ের গতিতে বলছিলেন দিদির ভাই
লিখে লিখে শোনা তো তাই ভুল থাকতে পারে তবু পড়ে দেখুন ভাল লাগবে

কলকাতা জ্বালিয়ে দিতাম ….........

আবার শালা আমাদের দিদি কে মারতে আসা। আলিমুদ্দিনে বসে এই সব শালা বুদ্ধদেবের ছক। সল্টলেকে যেখান দিয়ে দিদির গাড়ী যাচ্ছে সেখান গুলো সায়িন্টিফিক লোডশেডিং করার ছক করেছে শালা বুদ্ধদেব, সব জায়গায় আলো আছে আর দিদি যেখানে যাচ্ছে সেখানে আলো নেই ভাবুন একবার কি ছক। শালা রিপোটার সেজে ছত্রধরকে ধরেছে বলে, রিপোটার সেজে দিদি কে মারার ছক, কি সাহস। সবে দিদি নচিকেতার সাথে আড্ডা দিয়ে গাড়ীতে উঠেছে আর তার পর থেকে দিদি কে ফলো করা কি সাহস। নেহাত শালা কাল দু পাত্রর বেশি হয়ে গিয়েছিল না হলে কাল রাতেই কলকাতা জ্বালিয়ে দিতাম , বাংলা বনধ করতাম , আমাদের দিদিকে মারতে আসা সাহস তো কম নয়। আপনাদের মনে আছে তো বেদিভবনে দিদি কে পুলিশ যখন দিদিকে গুলি করার ছক করেছিল, আর দিদির শাড়ীটা গেটে লেগে ছিঁড়ে গেল, সি পি এমের চক্রান্ত ছিল সব আমরা শালা ১৪ টা বাস পুড়িয়ে দিয়েছিলাম, ট্রেন আটকে দিয়েছিলাম । কাল রাতেই কলকাতা জ্বালিয়ে দিতাম নেহাত শালা কাল দু পাত্রর বেশি হয়ে গিয়েছিল। আর সেবার নন্দীগ্রামে দিদির পায়ের কাছে গুলির খোল, শালা সি পি এক এর সায়েন্টিফিক গুলি, খোল শুদ্ধু বন্দুক থেকে বের হয়, যে গুলি ছোঁড়ে তার কাছে পড়ে না । তাই দিয়ে দিদিকে মারতে আসা , আমরা শালা সেদিন ই নন্দীগ্রাম জ্বালিয়ে দিতাম , কিন্তু তখন তো কোন সি পি এম ছিল না ওখানে কি লাভ হত।


আবার দিদি কে মারার ছক, শালা আলিমুদ্দিনে বসে এই সব শালা বুদ্ধদেবের ছক।আর এবার তো বুদ্ধদেবের বাপের চ্যানেল ২৪ ঘন্টা রিপোটার সেজে সুপারি কিলার পাঠালো। শুভপ্রসন্ন দা আবার সুপারি কিলার কে বলেছেন ওর বাপ মার শিক্ষা নেই, দোলা দি ওর মুখ চেপে ধরেছিল, ধুস এরা কিছু কাজের নয় আমরা থাকলে সুনীতা বানিয়ে দিতাম , সল্টলেকে তো গাছ আছে নাকি …...। সোমা না কি যেন নাম সুপারি কিলারটার ওকে আবার দিদি ভালোবেসে ডাইরি দিয়েছিল। মুকুল দা কোন কাজের নয় থানাতে নিয়ে যায় কেউ। ও তো শালা বুদ্ধদেবের বাপের থানা আমরা থাকলে সুনীতা বানিয়ে দিতাম নেহাত শালা কাল দু পাত্রর বেশি হয়ে গিয়েছিল। মুকুল দা একটা যা তা বলে কিনা স্বরাষ্ট মন্ত্রী কে ফোন করেছে, আরে শালা ও তো কংগ্রেসের স্বরাষ্টমন্ত্রী আর তাপস দা তো বলেই দিয়েছে , কংগ্রেস হলো সি পি এম এর পা চাটা কুকুর। তাদের কাছে বলে কি হবে। শালা দিদি এতবার বলছে মাওবাদীরা ভাল কি পটাপট সি পি এম মারছে ওদের বিরুদ্ধে কিনা মিলিটারী পাঠাচ্ছে কংগ্রেস। শালা দিদির কথার একটা দাম নেই , সব শালা সি পি এম এর বি টিম। শালা শিলিগুড়ি দেখেও শিক্ষা হল না । থাকত মদন দা দেখতো তা হলে এক দুই তিন গুণতো শুধু , তার মধ্যে সোমা না কি নাম যেন সুনীতা করে দেওয়া যেত, নেহাত শালা কাল দু পাত্রর বেশি হয়ে গিয়েছিল।


শালা মাওবাদী মাওবাদী করে যত ফালতু কথা, ছত্রধর কে ধরলো , কি সার্ভিস দিচ্ছিল ছত্রধর প্রায় প্রতিদিন একটা করে মাকু খালাস আর তাকে কিনা মাওবাদী বলে ধরা , শালা সি পি এম হল আসল মাওবাদী , দিদি ঠিক বলেছে দেখলেন না কি রকম বুদ্ধদেবের বাপের চ্যানেল সুপারি কিলার পাঠিয়ে দিদিকে মারতে এলো ।নেহাত শালা কাল দু পাত্রর বেশি হয়ে গিয়েছিল না হলে কলকাতা জ্বালিয়ে দিতাম ।